ঢাকা ০২:০৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এপ্রিল পর্যন্ত মাধ্যমিকে অ্যাসাইনমেন্ট, প্রাথমিকে চালু হচ্ছে ভার্চুয়াল ক্লাস

  • অনলাইন ডেস্ক
  • Update Time : ০৭:৩৩:৪১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ জানুয়ারী ২০২১
  • ২৫২ Time View
করোনার কারণে বন্ধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সহসাই খুলছে না। তবে নতুন শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থীদের পড়াশুনা চালিয়ে নিতে প্রাথমিকে ফের চালু হচ্ছে সংসদ টিভি, রেডিওসহ ভার্চুয়াল ক্লাস। আর মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের অনলাইনে পাঠানের পর শিখন মূল্যায়ন করতে আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত প্রতি সপ্তাহে অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়ার গাইডলাইন তৈরি করে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরে (মাউশি) প্রস্তাব পাঠিয়েছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

করোনার কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত শিখন কার্যক্রম চালু রাখতে অ্যাসাইনমেন্ট পদ্ধতি অনুসরণে গত রবিবার মাউশিকে চিঠি দিয়েছে এনসিটিবি। এনসিটিবি চেয়ারম্যান প্রফেসর নারায়ন চন্দ্র সাহা স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, এনসিটিবি কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের শিখন কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য ১২ এপ্রিল পর্যন্ত সময়সীমার জন্য সিলেবাস পুনঃনির্ধারণ করেছে। নির্ধারিত সিরেবাসের আওতায় শিক্ষার্থীদের শিখন মূল্যায়নের জন্য ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির সপ্তাহ ভিত্তিক অ্যাসাইনমেন্টও প্রণয়ন করা হয়েছে। চিঠিতে আরো বলা হয়েছে, বাংলা, ইরেজি, গণিত, বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়, বিজ্ঞান, কৃষিশিক্ষা ও গার্হস্থ বিজ্ঞান এই সাতটি বিষয়ের প্রণীত সিলেবাস ও অ্যাসাইনমেন্টের হার্ড কপি ও সফট কপি প্রেরণ করা হলো।
চিঠিরি বিষয়ে জানতে চাইলে এনসিটিবি চেয়ারম্যান প্রফেসর নারায়ন চন্দ্র সাহা আজকালের খবরকে বলেন, করোনার কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কবে খুলবে তা নিশ্চিত করে বলা যায় না। শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার মধ্যে রাখতে নতুন করে সিলেবাস কাস্টমাইজ করে শিক্ষার্থীদের ১২ এপ্রিল পর্যন্ত অ্যাসাইনমেন্ট দিতে মাউশিতে পাঠিয়েছি। এর পরে রমজানের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ছুটি থাকবে। তিনি আরো বলেন, প্রতি সপ্তাহে চারটি বিষয়ে শিক্ষকদের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়ার প্রস্তাব করেছি। এখন সিদ্ধান্ত নিবে মাউশি।
কবে থেকে অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম শুরু হবে জানতে চাইলে মাউশির পরিচালক (মাধ্যমিক) প্রফেসর মো. বেলাল হোসাইন আজাকালের খবরকে বলেন, এনসিটিবির চিঠিটি রবিবার পেয়েছি। মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভর্তি লটারি নিয়ে ব্যস্ত এনসিটিবির প্রস্তাবটি নিয়ে কাজ করতে পারিনি। দ্রুত আমরা সিদ্বান্ত জানিয়ে দিবো।
এদিকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সংসদ টিভি, রেডিও এবং অনলাইনে পাঠদান অব্যাহত থাকবে জানিয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম আজকালের খবরকে বলেন, জানুয়ারি মাস জুড়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি নিয়ে শিক্ষকরা ব্যস্ত থাকেন। তবে আগের মতোই টিভি-রেডিওতে ক্লাস অব্যাহত থাকবে। এরই মধ্যে নতুন শ্রেণির পাঠদান পরিচালনা করতে অনুমতি দিয়ে দিয়েছি। বর্তমানে কনটেন্ট তৈরির কাজ চলছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দুর্গম এলাকায় আমাদের অনেক স্কুল রয়েছে। সেখানে ভার্চুয়াল ক্লাস থেকে অনেক শিক্ষার্থী বঞ্চিত হচ্ছে। তাদের কথা বিবেচনা করে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হচ্ছে না। তবে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে শিক্ষকদের যোগাযোগ রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

Tag :

এপ্রিল পর্যন্ত মাধ্যমিকে অ্যাসাইনমেন্ট, প্রাথমিকে চালু হচ্ছে ভার্চুয়াল ক্লাস

Update Time : ০৭:৩৩:৪১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ জানুয়ারী ২০২১
করোনার কারণে বন্ধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সহসাই খুলছে না। তবে নতুন শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থীদের পড়াশুনা চালিয়ে নিতে প্রাথমিকে ফের চালু হচ্ছে সংসদ টিভি, রেডিওসহ ভার্চুয়াল ক্লাস। আর মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের অনলাইনে পাঠানের পর শিখন মূল্যায়ন করতে আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত প্রতি সপ্তাহে অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়ার গাইডলাইন তৈরি করে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরে (মাউশি) প্রস্তাব পাঠিয়েছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

করোনার কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত শিখন কার্যক্রম চালু রাখতে অ্যাসাইনমেন্ট পদ্ধতি অনুসরণে গত রবিবার মাউশিকে চিঠি দিয়েছে এনসিটিবি। এনসিটিবি চেয়ারম্যান প্রফেসর নারায়ন চন্দ্র সাহা স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, এনসিটিবি কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের শিখন কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য ১২ এপ্রিল পর্যন্ত সময়সীমার জন্য সিলেবাস পুনঃনির্ধারণ করেছে। নির্ধারিত সিরেবাসের আওতায় শিক্ষার্থীদের শিখন মূল্যায়নের জন্য ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির সপ্তাহ ভিত্তিক অ্যাসাইনমেন্টও প্রণয়ন করা হয়েছে। চিঠিতে আরো বলা হয়েছে, বাংলা, ইরেজি, গণিত, বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়, বিজ্ঞান, কৃষিশিক্ষা ও গার্হস্থ বিজ্ঞান এই সাতটি বিষয়ের প্রণীত সিলেবাস ও অ্যাসাইনমেন্টের হার্ড কপি ও সফট কপি প্রেরণ করা হলো।
চিঠিরি বিষয়ে জানতে চাইলে এনসিটিবি চেয়ারম্যান প্রফেসর নারায়ন চন্দ্র সাহা আজকালের খবরকে বলেন, করোনার কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কবে খুলবে তা নিশ্চিত করে বলা যায় না। শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার মধ্যে রাখতে নতুন করে সিলেবাস কাস্টমাইজ করে শিক্ষার্থীদের ১২ এপ্রিল পর্যন্ত অ্যাসাইনমেন্ট দিতে মাউশিতে পাঠিয়েছি। এর পরে রমজানের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ছুটি থাকবে। তিনি আরো বলেন, প্রতি সপ্তাহে চারটি বিষয়ে শিক্ষকদের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়ার প্রস্তাব করেছি। এখন সিদ্ধান্ত নিবে মাউশি।
কবে থেকে অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম শুরু হবে জানতে চাইলে মাউশির পরিচালক (মাধ্যমিক) প্রফেসর মো. বেলাল হোসাইন আজাকালের খবরকে বলেন, এনসিটিবির চিঠিটি রবিবার পেয়েছি। মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভর্তি লটারি নিয়ে ব্যস্ত এনসিটিবির প্রস্তাবটি নিয়ে কাজ করতে পারিনি। দ্রুত আমরা সিদ্বান্ত জানিয়ে দিবো।
এদিকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সংসদ টিভি, রেডিও এবং অনলাইনে পাঠদান অব্যাহত থাকবে জানিয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম আজকালের খবরকে বলেন, জানুয়ারি মাস জুড়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি নিয়ে শিক্ষকরা ব্যস্ত থাকেন। তবে আগের মতোই টিভি-রেডিওতে ক্লাস অব্যাহত থাকবে। এরই মধ্যে নতুন শ্রেণির পাঠদান পরিচালনা করতে অনুমতি দিয়ে দিয়েছি। বর্তমানে কনটেন্ট তৈরির কাজ চলছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দুর্গম এলাকায় আমাদের অনেক স্কুল রয়েছে। সেখানে ভার্চুয়াল ক্লাস থেকে অনেক শিক্ষার্থী বঞ্চিত হচ্ছে। তাদের কথা বিবেচনা করে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হচ্ছে না। তবে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে শিক্ষকদের যোগাযোগ রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।