বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:০৫ অপরাহ্ন
৯ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ বসন্তকাল, ১১ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি
ব্রেকিং নিউজ
রাখাইন প্রদেশের একটি হাসপাতালে বোমা হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে জান্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে সমুদ্রসীমার সম্পদ আহরণ করে দেশের মানুষের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে কাজে লাগানোর ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন প্রধানমন্ত্রী আইসিজে শুনানিতে অংশ নিয়ে আবারো ইসরায়েলের নিরাপত্তায় জোর দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আজকে কোন টিভি চ্যানেলে কোন খেলা পোস্তগোলা সেতুর (বুড়িগঙ্গা-১) দুটি গার্ডারের মেরামত ও রেট্রোফিটিংয়ের কাজ শুরু হচ্ছে আজ আপাতত ছাপানো টাকা বাজারে ছাড়বে না কেন্দ্রীয় ব্যাংক ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ: ২০০ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের ওপর নিষেধাজ্ঞা বিশ্বের অর্ধেকেরও বেশি অঞ্চল হামের প্রাদুর্ভাবের উচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে : ডব্লিউএইচও সুন্নতে খতনা করতে গিয়ে শিশুর মৃত্যু: দুই চিকিৎসক গ্রেপ্তার, বন্ধ হাসপাতাল শ্রদ্ধায় শোকে ভাষাশহীদদের স্মরণ

পদ্মা জয়ের স্বাক্ষীও এক জন শোয়েব আলী

অনলাইন ডেস্ক
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ২৪০ Time View

আজ বৃহস্পতিবার সকালে পদ্মা সেতুতে শেষ স্পেন বসানোর মুহূর্তটি স্বচক্ষে দেখতে এসেছিলেন এই তরুণ। নাম তাঁর শোয়েব আলী বোখারি (৩২)। পেশায় মোটর মেকানিক। থাকেন ঢাকার বাড্ডায়। গ্রামের বাড়ি ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার চরনাছিপুর গ্রামে। ২০০৮ সালে পদ্মার ভাঙনে বসতবাড়ি বিলীন হলে তাঁর পরিবার ঢাকায় আশ্রয় নেয়। তিনি উবারচালকও।

শোয়েব আলী

শুরু থেকেই পদ্মা সেতু নিয়ে দেশবাসীর উচ্ছ্বাসের কমতি নেই। দেশের আইকনিক ক্রিকেট ফ্যান হিসেবে পরিচিত শোয়েবও ব্যতিক্রম নন। দেশের খেলা মানেই গ্যালারীতে তার সরব উপস্থিতি। ক্রিকেটভক্ত হিসেবে টাইগার শোয়েব উপাধি পেয়েছেন তিনি।

দলের যেকোনো জয়, অর্জনে গ্যালারীতে পতাকা ওড়ান শোয়েব। তবে আজ গ্যালারীতে নয়, তিনি দেশকে অকুণ্ঠ সমর্থন জানিয়েছেন পদ্মার পাড়ে গিয়ে। পদ্মা সেতুর শেষ স্প্যান বসানো দেখতে সেখানে যান তিনি।

২২ গজে বাংলাদেশের অনেক ইতিহাসের সাক্ষী শোয়েব। স্বপ্নের পদ্মা সেতুর সম্পূর্ণ দৃশ্যমান হওয়ার মাহেন্দ্রক্ষণের সাক্ষী হওয়ার সুযোগও হারাতে চাননি তিনি। এ কারণে যথারীতি বাঘের সাজে জাতীয় পতাকা হাতে গিয়েছিলেন পদ্মা সেতুর শেষ স্প্যান বসানো দেখতে। কাঙ্ক্ষিত মুহুর্তটি উপভোগের পর বিজয়ের পতাকা ওড়াতে ভোলেননি তিনি।

শোয়েব আলী বলেন, ‘আমি যখন জাতীয় পতাকা নিয়ে মাঠে যাই, তখন হারজিতের শঙ্কা থাকে। কিন্তু আজ শুধুই বিজয়। জাতীয় পতাকার মতোই পদ্মার বুকে আজ দাঁড়িয়ে গেল আমাদের গর্বের পদ্মা সেতু। বিজয়ের মাসে বিশ্ববাসী এই ঐতিহাসিক ক্ষণের সাক্ষী হয়েছে। আমিও জাতীয় পতাকা বুকে ধারণ করে পদ্মায় দাঁড়িয়ে ছিলাম। দেশের এমন মাহেন্দ্রক্ষণেই তো জাতীয় পতাকা বুকে জড়ানো যায়। এ এক অন্য রকম বিজয়। ১৮ কোটি মানুষের বিজয়। বিশ্ববাসী বাঙালির এ বিজয় প্রত্যক্ষ করেছে।’

আজ দুপুর ১২টা ২ মিনিটে মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তের ১২-১৩ নম্বর পিলারের ওপর বসানো হয় ‘টু-এফ’ স্প্যানটি। এর মাধ্যমে ৬ হাজার ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের সেতুটি পুরোপুরি দৃশ্যমান হয়।

More News Of This Category
© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102