বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:০২ পূর্বাহ্ন
১৬ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ বসন্তকাল, ১৮ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি
ব্রেকিং নিউজ
২০৩৫ সাল নাগাদ দেশে ২ কোটি ২০ লাখ হতে পারে ডায়াবেটিস রোগী রিজার্ভ বাড়াতে আসছে অফশোর ব্যাংকিং, হচ্ছে আইন রোজায় সরকার নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের মূল্য স্বাভাবিক রাখতে সকল প্রকার কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে পিএসসির প্রতিটি কাজে স্বচ্ছতা-জবাবদিহিতা ও প্রযুক্তির ব্যবহার নিশ্চিতের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির পবিত্র রমজানে অফিস সকাল ৯ টা থেকে সাড়ে ৩ টা রমজান মাসে সরকারিভাবে বড় ধরনের কোনও ইফতার পার্টি না করার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী দালাল ধরতে বিভিন্ন হাসপাতালে র‍্যাবের অভিযান, আটক ৩৬ দ্বাদশ জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচিত সদস্যরা শপথ নিয়েছেন দেশপ্রেম ও পেশাদারিত্বের পরীক্ষায় বার বার উত্তীর্ণ হয়েছে পুলিশ পুলিশ বাহিনী আজ একটি আধুনিক, যুগোপযোগী, দক্ষ, গতিশীল ও জনবান্ধব বাহিনী

হামাস-ইসরাইল যুদ্ধবিরতি : প্রতি ১০ বন্দীর মুক্তির বিনিময়ে এক দিন করে যুদ্ধবিরতি বাড়বে

আন্তজার্তিক ডেস্ক
  • Update Time : শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৩৮ Time View

আজ শুক্রবার স্থানীয় সময় সকাল ৭টা থেকে (জিএমটি ৫.০০) ইসরাইল এবং হামাসের মধ্যে যুদ্ধবিরতি কার্যকর হচ্ছে। এর স্থায়িত্ব হবে চার দিন। এই সময়ের মধ্যে গাজাভিত্তিক ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের হাতে বন্দী ৫০ জনকে মুক্তি দেয়া হবে। এর বিনিময়ে ইসরাইলের কারাগারে আটক ১৫০ ফিলিস্তিনিকে মুক্তি দেয়া হবে। এছাড়া গাজায় বিপুল পরিমাণে জ্বালানি এবং অন্যান্য সহায়তা প্রবেশ করার সুযোগ দেয়া হবে। প্রাথমিকভাবে চার দিন স্থায়ী হবে এই যুদ্ধবিরতি। তবে প্রতি ১০ বন্দীর মুক্তির বিনিময়ে এক দিন করে যুদ্ধবিরতি বাড়বে।

বৃহস্পতিবার কাতারে দুই পক্ষের মধ্যকার সমঝোতার বিষয়টি প্রকাশ করা হয়। ইসরাইল, হামাস, কাতার, মিসর ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিদের ব্যাপক আলোচনার মাধ্যমে যুদ্ধবিরতির শর্তগুলো চূড়ান্ত হয়।

চুক্তি অনুযায়ী স্থানীয় সময় বিকেল ৪টায় (১৪.০০ জিএমটি) গাজা থেকে হামাস ১৩ বন্দীকে মুক্তি দেবে। এরা সবাই হবে নারী ও শিশু। আজকের মুক্তিপ্রাপ্তদের মধ্যে তিনজন আমেরিকানও থাকবে। এদের একজন হচ্ছে তিন বছর বয়স্ক আবিগাইল মোর ইদান।

এর বিনিময়ে স্থানীয় সময় আজ রাত ৮টায় (১৮ জিএমটি) ৩৯ ফিলিস্তিনিকে মুক্তি দেবে। ইসরাইলের তিনটি কারাগার থেকে তাদের মুক্তি দেয়া হবে।

গাজায় আন্তর্জাতিক রেড ক্রস বন্দীদের মুক্তির সাথে সম্পৃক্ত থাকবে। তারাই বন্দীদেরকে ইসরাইলি সামরিক বাহিনীর হাতে হস্তান্তর করবে। এরপর শনাক্তকরণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে। তারপর তাদেরকে শারীরিক ও মানসিক অবস্থা পরীক্ষা করার জন্য ইসরাইলের বিভিন্ন হাসপাতালে নেয়া হবে।

হামাস গত ৭ অক্টোবর ইসরাইলের ভেতরে হামলা চালিয়ে প্রায় ২৪০ জনকে ধরে আনে। ইতোমধ্যে দুই দফায় চারজনকে মুক্তি দেয়া হয়েছে। হামাসের হামলায় ওই দিন প্রায় ১২ শ’ লোক নিহত হয়েছিল বলে ইসরাইলিরা দাবি করছে। আর এরপর থেকে গাজায় ইসরাইলি হামলায় নিহতের সংখ্যা ১৪ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। গাজার বিরাট অংশ ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে।

সূত্র : আল জাজিরা, টাইমস অব ইসরাইল এবং অন্যান্য

More News Of This Category
© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102